June 21, 2024, 11:07 pm

আমি আগে থেকে কিছু বলতে পছন্দ করি না

Reporter Name

আজ থেকে নতুন এক অবতারে পাওয়া যাবে নাজিয়া হক অর্ষাকে। মাছরাঙা টেলিভিশনে আজ রাত ৮টা ৪০ মিনিটে প্রচারিত হবে তুহিন হোসেনের নতুন ধারাবাহিক নাটক ‘ক্যাম্পাস’-এর প্রথম পর্ব। এতে অর্ষা অভিনয় করেছেন ছাত্রনেতা শবনমের চরিত্রে। কোনো অন্যায়, অনিয়ম হলেই রুখে দাঁড়ায় শবনম।

তার এই প্রতিবাদী চরিত্রের জন্য বেশ জনপ্রিয়তাও রয়েছে ক্যাম্পাসে।
অর্ষা বলেন, ‘একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যা যা ঘটে সবটাই উঠে এসেছে এই ধারাবাহিকে। এখানে প্রেম আছে, প্রতিবাদ আছে, আছে অন্যান্য বিষয়ও। আমার চরিত্রটা নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করার জায়গা ছিল।

সেটা করেছিও। দর্শকদের ভালো লাগবে।’
বরাবরই বেছে বেছে কাজ হাতে নেন অর্ষা। একই সঙ্গে অনেকটা প্রচারবিমুখও।

কোনো কাজ হাতে এলেই সবাইকে জানান দিতে পছন্দ করেন না। বলেন, ‘আরো কয়েকটি কাজ করছি। তবে সেগুলো নিয়ে কথা বলতে চাই না। আগে শুটিং শেষ হোক, প্রচারের তারিখ চূড়ান্ত হোক। তারপর সেগুলো নিয়ে আলোচনা করব।

প্রচারে থাকতে ভালো লাগে না আমার। নীরবে কাজ করে যাওয়াটাই স্বভাব।’
এ বছর অর্ষা অভিনীত ‘১৯৭১ সেই সব দিন’ মুক্তি পেয়েছে। হৃদি হকের ছবিটিতে ছোট একটি চরিত্রে হাজির হয়েছিলেন। তাঁর স্বল্প উপস্থিতিও দর্শক-সমালোচকদের নজর কেড়েছে। অর্ষা বলেন, ‘আমি সরাসরি যেমন প্রশংসা পেয়েছি, তেমনি ফোনেও অনেকের ভালোবাসা পেয়েছি। অনেকে বলেছেন, আরেকটু উপস্থিতি থাকলে ভালো হতো। তবে আমার মনে হয়েছে, যেটুকু উপস্থিতি ছিল সেটুকুই যথেষ্ট। আর বেশি হলে সবার মনে আমার চরিত্রটি নিয়ে যে আকাঙ্ক্ষা জন্মেছে সেটা তৈরি হতো না। আমি খুশি।’

অর্ষার হাতে নতুন একটি চলচ্চিত্র আছে। নামধাম, পরিচালক, সহশিল্পী কোনোটাই জানাতে চান না। বলেন, ‘আমি আসলে আগে থেকে কিছু বলতে পছন্দ করি না। একটা ভালো কাজ হলে এমনিতেই চারদিকে রোল পড়ে যায়। নিজে থেকে কিছু বলা লাগে না।’

অর্ষার মা অনেক দিন ধরে অসুস্থ। সপ্তাহে তিন দিন তাঁকে ডায়ালিসিস করাতে হয়। তিন বোন পালাক্রমে মায়ের জন্য সময় দেন। অর্ষা বলেন, ‘আগে সপ্তাহে দুই দিন ডায়ালিসিস করালেই চলত। তবে চিকিৎসকের পরামর্শে এখন সপ্তাহে তিন দিন ডায়ালিসিস করাই। আমার শুটিং থাকলে বোনেরা মাকে সময় দেয়। যেদিন শুটিং থাকে না পুরো সময়টা মায়ের সঙ্গে কাটানোর চেষ্টা করি। মা এখন আগের চেয়ে কিছুটা সুস্থ আছেন। হাসপাতাল থেকে বাসায়ও এনেছি। আশা করছি দ্রুত মা পুরোপুরি সুস্থ হয়ে যাবেন।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

স্বদেশে ফিরছে লুণ্ঠিত শিল্প নিদর্শনস্বদেশে ফিরছে লুণ্ঠিত শিল্প নিদর্শন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের বিখ্যাত মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম থাইল্যান্ড ও কম্বোডিয়ার ১৬টি প্রাচীন শিল্প নিদর্শন ফেরত দেবে। নিদর্শনগুলো প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান বা ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা থেকে অবৈধভাবে নেওয়া হয়েছিল জানার পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেট নামে বেশি পরিচিত মার্কিন জাদুঘরটি। শুক্রবার নিউ ইয়র্কে জাদুঘর কর্তৃপক্ষ এবং ফেডারেল প্রসিকিউটররা শিল্প নিদর্শনগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন। শিল্পকর্মগুলো জাদুঘরে সরবরাহ করেছিলেন ব্রিটিশ শিল্প ব্যবসায়ী ডগলাস ল্যাচফোর্ড। ২০১৯ সালে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ‘পুরাকীর্তি পাচারের বিশাল নেটওয়ার্ক চালানোর’ দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছিল তাঁকে। প্রসিকিউটররা বলেছেন, মেট জাদুঘর স্বেচ্ছায় নিদর্শনগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি দপ্তরের গোয়েন্দা ইরিন কিগ্যান শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ডগলাস ল্যাচফোর্ডের ঘটনা তদন্তের সঙ্গে জড়িত শিল্প নিদর্শনগুলো কিভাবে একে একে বেরিয়ে আসছে আজকের ঘোষণায় তা-ই উঠে এসেছে। শিল্পকর্মগুলো বেপরোয়াভাবে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছিল। ’ ১৪টি খেমার ভাস্কর্য কম্বোডিয়া এবং দুটি থাইল্যান্ডে ফেরত পাঠানো হবে। মেটের পরিচালক ম্যাক্স হোলেন আরেকটি পৃথক বিবৃতিতে বলেছেন, তাঁরা কম্বোডিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি অফিসের সঙ্গে বহু বছর ধরে এই নিদর্শনগুলোর বিষয়টি সমাধানের জন্য কাজ করে আসছেন। শিল্প নিদর্শনগুলো খ্রিস্টীয় নবম থেকে ১৪ শ শতকের মধ্যকার। মোটামুটিভাবে প্রাচীন আংকর যুগের। জাদুঘরের দেওয়া তথ্য অনুসারে এগুলোতে বৌদ্ধ এবং হিন্দু উভয় ধর্মের প্রভাব দেখা যায়। তদন্তকারীরা গত দশকে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যজুড়ে ডগলাস ল্যাচফোর্ডের চুরি করা বেশ কিছু প্রাচীন শিল্প নিদর্শন খুঁজে পেয়ে উদ্ধার করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে আইনি অভিযোগের মুখোমুখি হওয়ার সময় ২০২০ সালে তাঁর মৃত্যু হয়। কম্বোডিয়ায় ১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝি থেকে ১৯৯০-এর দশকের শেষ পর্যন্ত তিন দশকের গৃহযুদ্ধের মধ্যে বেশির ভাগ প্রাচীন নিদর্শন লুণ্ঠিত হয়েছিল। এ সময় বামপন্থী খেমাররুজরা ক্ষমতায় ছিল।স্বদেশে ফিরছে লুণ্ঠিত শিল্প নিদর্শন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের বিখ্যাত মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম থাইল্যান্ড ও কম্বোডিয়ার ১৬টি প্রাচীন শিল্প নিদর্শন ফেরত দেবে। নিদর্শনগুলো প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান বা ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা থেকে অবৈধভাবে নেওয়া হয়েছিল জানার পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেট নামে বেশি পরিচিত মার্কিন জাদুঘরটি। শুক্রবার নিউ ইয়র্কে জাদুঘর কর্তৃপক্ষ এবং ফেডারেল প্রসিকিউটররা শিল্প নিদর্শনগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন। শিল্পকর্মগুলো জাদুঘরে সরবরাহ করেছিলেন ব্রিটিশ শিল্প ব্যবসায়ী ডগলাস ল্যাচফোর্ড। ২০১৯ সালে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ‘পুরাকীর্তি পাচারের বিশাল নেটওয়ার্ক চালানোর’ দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছিল তাঁকে। প্রসিকিউটররা বলেছেন, মেট জাদুঘর স্বেচ্ছায় নিদর্শনগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি দপ্তরের গোয়েন্দা ইরিন কিগ্যান শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ডগলাস ল্যাচফোর্ডের ঘটনা তদন্তের সঙ্গে জড়িত শিল্প নিদর্শনগুলো কিভাবে একে একে বেরিয়ে আসছে আজকের ঘোষণায় তা-ই উঠে এসেছে। শিল্পকর্মগুলো বেপরোয়াভাবে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছিল। ’ ১৪টি খেমার ভাস্কর্য কম্বোডিয়া এবং দুটি থাইল্যান্ডে ফেরত পাঠানো হবে। মেটের পরিচালক ম্যাক্স হোলেন আরেকটি পৃথক বিবৃতিতে বলেছেন, তাঁরা কম্বোডিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি অফিসের সঙ্গে বহু বছর ধরে এই নিদর্শনগুলোর বিষয়টি সমাধানের জন্য কাজ করে আসছেন। শিল্প নিদর্শনগুলো খ্রিস্টীয় নবম থেকে ১৪ শ শতকের মধ্যকার। মোটামুটিভাবে প্রাচীন আংকর যুগের। জাদুঘরের দেওয়া তথ্য অনুসারে এগুলোতে বৌদ্ধ এবং হিন্দু উভয় ধর্মের প্রভাব দেখা যায়। তদন্তকারীরা গত দশকে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যজুড়ে ডগলাস ল্যাচফোর্ডের চুরি করা বেশ কিছু প্রাচীন শিল্প নিদর্শন খুঁজে পেয়ে উদ্ধার করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে আইনি অভিযোগের মুখোমুখি হওয়ার সময় ২০২০ সালে তাঁর মৃত্যু হয়। কম্বোডিয়ায় ১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝি থেকে ১৯৯০-এর দশকের শেষ পর্যন্ত তিন দশকের গৃহযুদ্ধের মধ্যে বেশির ভাগ প্রাচীন নিদর্শন লুণ্ঠিত হয়েছিল। এ সময় বামপন্থী খেমাররুজরা ক্ষমতায় ছিল।